নিজের কাজ বাদ দিয়ে কারো জন্য দিনরাত সময় দিচ্ছো ? দিন শেষে তোমার কাজটাই আর করা হবে না !



/* কিছু উপদেশ এবং আমি */

১। উপদেশঃ কারো জন্য খুব বেশি ভালো হইতে হয় না
আমিঃ সবার জন্যই খুব ভাল থাকার চেষ্টা করি :)

২। উপদেশঃ খুব বেশি ভালো হওয়া বিপজ্জনক 
আমিঃ এই ভয় নেই, ভাল সবসময় ভাল অন্তরে গলদ থাকলেই বিপদ আসে।

৩। উপদেশঃ একজনের জন্য নিজের ১০০% দিয়ে দিচ্ছো ? ... বেস্ট অফ লাক ....
একদিন দেখবা, ঐ ১০০% এর ০% মূল্য দিয়েই সে চলে গেছে ...../ 
তখন ২০০% হতাশা নিয়ে বসে থাকা ছাড়া উপায় থাকবে না !
আমিঃ অসংখ্য মানুষের জন্য নিজের ১০০ % সেবা করেছি টাকা শ্রম সময় দিয়ে জানতাম ০% মূল্য দিবেনা কিন্তু আমি ১% পাবার আসায় করি নাই, তাই হতাশ হবার কোন কারণ নেই :)

৩। উপদেশঃ নিজের কাজ বাদ দিয়ে কারো জন্য দিনরাত সময় দিচ্ছো ?
দিন শেষে তোমার কাজটাই আর করা হবে না ... ধন্যবাদ আর কৃতজ্ঞতা দিয়ে পেট ভরে না ... খাবার লাগে !
আমিঃ আমার একা খাবার এর চিন্তা করিনা, আমার দিনরাত সময় দেয়াতে হয় আরও অনেক মানুষের খাবার জুটবে, মানুষ খেয়েই মরে কিন্তু না খেলে কেও মরেনা আবার মরে যাওয়ার মত কেও না খেয়ে থাকেনা :)



৪। উপদেশঃ আবেগ অনেক দামী ... সময় অনেক মূল্যবান ... সব উজাড় করে দিয়ে যেও না..../
ভুল মানুষগুলো ওটা পাওয়ার যোগ্য না !
আমিঃ আবেগ দিয়েই মানুষ কে ভালবাসতে হয় লোক দেখানোর জন্য না, যারা নেশা করে তাড়াই সময়ের মূল্য দিতে বুঝেনা, সব উজাড় করে কেউ কাউকে কিছু দেয় না, অনেকে দিয়ে দেয় তাতে কোন লস নেই কারণ সে না বুঝেই দিয়েছে আল্লাহ্‌ ঠিক ফেরত দিবে অন্য দিক দিয়ে এর জন্য আল্লাহ্‌কে ও খুশী রাখতে হবে :)

৪। উপদেশঃ যখন ভুলটা বুঝতে পারবে, যখন মানুষ চিনতে পারবে ... তখন থেমে যেও ... দেরি না করেই থেমে যেও ... এই পৃথিবীতে থামতে জানতে হয় ... স্রোতের মত ভুল পথে ভেসে গেলে আর ফেরত আসা যায় না !
আমিঃ জীবন আর দুনিয়ে বিশাল পরীক্ষা
আল্লাহ্‌ বলেছেনঃ অবশ্যই আমি তোমাদিগকে পরীক্ষা করব কিছুটা ভয়, ক্ষুধা, 
মাল ও জানের ক্ষতি ও ফল-ফসল বিনষ্টের মাধ্যমে। তবে সুসংবাদ দাও সবরকারীদের। 
যখন তারা বিপদে পতিত হয়, তখন বলে, নিশ্চয় আমরা সবাই আল্লাহর জন্য এবং আমরা 
সবাই তাঁরই সান্নিধ্যে ফিরে যাবো।" [সূরা আল বাক্বারাহ - ১৫৩ - ১৫৬]

সুরা ফাতিহাঃ ৫। আল্লাহ আমাদেরকে সরল পথ দেখাও ৬। সে সমস্ত লোকের পথ, যাদেরকে তুমি নেয়ামত দান করেছ। তাদের পথ নয়, যাদের প্রতি তোমার গজব নাযিল হয়েছে এবং যারা পথভ্রষ্ট হয়েছে।
মুসলিম হিসেবে আপনাকে মানতে হবেঃ জানেন ই ত শয়তান আছে, তাই ত এত টাঙ্কি মারি, আর সিনেমা দেখি, তাই আল্লাহ এর কাছে প্রার্থনা করতে হবে ওনি যেন আমাদের কে শয়তানের হাত থেকে বাঁচায় ভুল পথ গুলো থেকে বাঁচায় যারা ভুল পথে চলে ইসলামী শরিয়ার বাহিরে তাদের উপর আল্লাহ্‌ গজব নাজিল করে,

বিঃদ্রঃ কাওকে মায়া করা, সময় দেয়া, সাহায্য করা ইসলাম বহির্ভুত কাজ নয়, যে আল্লাহ্‌ আপানকে স্রোতে ভাসিয়ে দিবে, তারপরেও যদি ভেসে যান তাহলে সেটা আল্লাহ্‌ এর কঠিন পরীক্ষা আর এই পরীক্ষায় যারা ফেইল মারে তারাই এই ধরনের উপদেশ দেয়........./

/* সংগ্রহীত ও পরিমার্জিত */

./TheShahzada

Share this

Related Posts

Previous
Next Post »